তিন বছরের শিশুও প্রাণ হারায় বাবার সঙ্গে নামাজ পড়তে গিয়ে

তিন বছরের শিশুও প্রাণ হারায় বাবার সঙ্গে নামাজ পড়তে গিয়ে Image

তিন বছরের শিশুও  প্রাণ হারায় বাবার সঙ্গে নামাজ পড়তে গিয়ে 

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নূর মসজিদে হামলার ঘটনায় তিন বছরের একটি শিশুও মারা গেছে। ওই  মসজিদে শিশুটি তার বাবার সাথে নামাজ পড়তে গিয়েছিল। অস্ট্রেলিয় জঙ্গি ব্রেন্টনের ভয়াবহ ও নৃশংস বন্দুক হামলা থেকে রেহাই পায়নি এই ছোট্ট শিশুটি। হামলায় অন্য ৪৮ জনের সাথে তারও মৃত্যু হয়।

শিশুটির নাম মুকাদ ইব্রাহিম। সে ওই মসজিদে তার বাবার সঙ্গে নামাজ পড়তে  গিয়েছিল । সাথে ছিল তার ভাই আবদি রহমান। যখন নির্বিচারে হামলাকারী গুলি করা শুরু করে তখন থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তার মরদেহের সন্ধানও কেউ দিতে পারেনি।

আরো পড়ুন : নিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসী হামলা-নিহত ড. সামাদ ৫ বছর আগে পাড়ি জমান নিউজিল্যান্ডে

আরও শোনা যাচ্ছে, চার বছর এক কন্যাশিশু  ও দুই বছরের একটি ছোট্ট ছেলেও  সেই হামলার ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে। চার বছরের কন্যাশিশুটি অকল্যান্ডের একটি হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। তবে দুই বছরের ছেলে শিশুটি আশঙ্কামুক্ত। সে এখন ক্রাইস্টচার্চের হাসপাতালে আছে।

দুই বছর বয়সী ওই ছেলে শিশুটির সাথে হাসপাতালে আরও ভর্তি আছে ১৩ বছরের একটি বালকও। তার অবস্থাও খুব একটা ভালো না। তাছাড়া ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। তার নাম সৈয়দ মিলনি। সে তার মায়ের সাথে মসজিদে যায়।

১৪ বছর বয়সী ওই কিশোরের বাবা বলছিলেন, ‘আমাকে এখনো তার মৃত্যুর ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি যে সে আসলে মারা গেছে কিনা। কিন্তু তাকে না দেখতে পেয়ে আমারও তাই মনে হচ্ছে। আমি তার কথা মনে করতে পারি। সে এমন সময়ে মারা গেলে ঠিক যেই মাসে তার জন্ম।

আরো পড়ুন : মুসলমানদের দোষ দেওয়ায় অস্ট্রেলিয়ার সিনেটরের মাথায় ডিম মারলেন